Category Archives: উইন্ডোজ

উইন্ডোজ ৮ এ গুগল ড্রাইভ ইনস্টল করার সময় ‘python27.dll’ ফাইল সংক্রান্ত সমস্যার সমাধান

আমরা কমবেশি অনেকেই অনলাইন ফাইল স্টোরেজের কথা জানি। আর গুগল ড্রাইভ, এর ভিতরে একটি। যারা গুগল ড্রাইভ ব্যবহার করে থাকেন তারা অনেকেই উইন্ডোজ ৮ এ তাদের পছন্দের এই গুগল ড্রাইভ চালাতে পারছেন না।

উইন্ডোজ ৮ এ গুগল ড্রাইভ চালাতে গেলে অনেক সময় অনেক ধরনের সমস্যা হয়। তাদের ভিতরে রয়েছে ‘পাইথন২৭’ ফাইল সংক্রান্ত সমস্যা।

যদি আপনি উইন্ডোজ ৮ এ গুগল ড্রাইভ ব্যবহার করতে গিয়ে কোন সমস্যায় পড়েন আর ‘পাইথন২৭’ সংক্রান্ত কোন ম্যাসেজ পান, তাহলে নিচের সমাধানটি একবার চেষ্টা করে দেখতে পারেন।

Error Message

Error

‘পাইথন২৭’ সংক্রান্ত সমস্যাটির সমাধান :

১. ‘https://drive.google.com/‎’ – এই সাইটটিতে গিয়ে আপনার জিমেইলের একাউন্ট দিয়ে লগইন করুন।

মজিলা ফায়ারফক্স : ‘History Close Tab’ ডিজেবল করা

আমরা যারা ইন্টারনেট ব্যবহার করি, তাদের কাছে এই মজিলা ফায়ারফক্স নামটি খুবই পরিচিত। এটি একটি ব্রাউজার, যা দিয়ে আমরা ওয়েবসাইট ব্রাউজ করতে পারি।

মজিলা ফায়ারফক্স এর একটি বিশেষ সুবিধা হল একসাথে একাধিক ট্যাব এর ব্যবহার, যা আমাদের একাধিক ওয়েবসাইটকে একটি ব্রাউজারের ভিতরেই সীমাবদ্ধ রাখতে সাহায্য করে।

যখন যেই ট্যাব এর প্রয়োজন শেষ হয়ে যায় আমরা সেই ট্যাবটি ক্লোজ করে ফেলি। কিন্তু ক্লোজ করে ফেলা সর্বশেষ ১০ টি ট্যাব এর তথ্য সেইভ রয়ে যায় এই ব্রাউজারেই। এর সুবিধা হল, যদি কেউ ভুলে কোন ট্যাব ক্লোজ করে ফেলে তাহলে সেটাকে আবার ফিরিয়ে আনতে পারে।

কিন্তু কেউ যদি চায় তার সকল ভিজিট করা ওয়েবসাইটের তথ্য সেইভ থাকবেনা এবং সে ক্যাশ, হিস্টোরি ইত্যাদি ক্লিয়ার করে ফেলে তারপরেও অনেক সময় দেখা যায় ক্লোজ করা সর্বশেষ ১০ টি ট্যাব ঠিকই রয়ে যায়। এবং কোন মতেই সেটা ক্লিয়ার করা যায় না।

আবার অনেকে মনে করতে পারে এই সুবিধাটি তার প্রয়োজন নেই। উপকারের থেকে বরং তাকে অপকার করছে এটা। তাহলে সে ইচ্ছে করলেই মজিলা ফায়ারফক্স এর এই সুবিধাটি ডিজেবল বা বন্ধ করে রেখে দিতে পারে। এতে করে তার আর ক্লোজ করে ফেলা কোন সাইট সেইভ থাকবে না। একেই বলে ‘Disable History Close Tab’।

অনেক কথা হল এখন আসল  কাজে আসি :

১. মজিলা ফায়ারফক্সের এড্রেস-বারে (যেখানে ওয়েবসাইটের ওয়েব এড্রেস টাইপ করা হয়) টাইপ করুন : about:config

উইন্ডোজ এর ‘Send To’ মেনু নিজের পছন্দ মত করে সাজান

উইন্ডোজ ব্যবহারকারী প্রায়ই সকলেই উইন্ডোজের এই ‘Send to’ মেনুর সাথে পরিচিত। যে কোন ফাইল বা ফোল্ডারে মাউসের ডান বোতাম ক্লিক করলেই আমরা এই মেনুটিকে দেখতে পাই। এই মেনুর দ্বারা আমরা যে কোন ফাইল/ফোল্ডারকে পেন-ড্রাইভে বা অন্য কোন স্থানে খুব সহজেই কপি করে নিতে পারি। এছাড়াও ডেস্কটপে শর্টকাট তৈরি করতে পারি, কমপ্রেস করে অন্য কোথাও সহজেই কপি করে রেখে দিতে পারি, সিডি/ডিভিডিতে রাইটও করতে পারি।

send-to-menu

ইচ্ছে করলেই আমরা এই মেনুটিকে নিজের পছন্দমত সাজিয়ে নিতে পারি। যেমন, মনে করুন আপনার ইচ্ছে আপনি বিভিন্ন ড্রাইভ থেকে আপনি ফাইল/ফোল্ডার একটি ফোল্ডারে কপি করে নিবেন পরে সেই ফোল্ডারটিকে সিডিতে রাইট করবেন বা ফোনে ভরে রাখবেন। অথবা, আপনি যখন আপনার ফোনে গান নিতে চান, তখন এই ‘Send To’ মেনু আপনাকে অনেক সাহায্য করবে।

নরমালি সেন্ড-টু মেনু ব্যবহার কে সরাসরি গানগুলি আপনার ফোনে নিলে সেই গানগুলি পছন্দমত ফোল্ডারে গিয়ে পড়বে না এবং ফোনের অন্যান্য ফাইল/ফোল্ডার এর সাথে ছড়িয়ে ছিটিয়ে যাবে।

তাই যদি আপনি প্রথমেই সকল ফাইল/ফোল্ডারকে একটি ফোল্ডারে সহজেই সাজিয়ে নিতে পারেন আপনার জন্য কাজটি করা ঝামেলাপূর্ণ মনে হবে না।

তাহলে আসুন যেনে নেই কি করে উইন্ডোজের ‘Send To’ মেনু নিজের পছন্দমত সাজাতে হয়।

প্রাইভেট ব্রাউজিং – Anonymous Surfing

এখনকার প্রায় সকল ব্রাউজারেই এই private browsing mode দেয়া থাকে এবং সেগুলো প্রায় একই রকম কাজ করে থাকে। প্রাইভেট ব্রাউজিং এর সময়  ‘browsing history’, ‘browser cache’ এর ডাটা এবং ব্রাউজারে যে সকল বিষয় টাইপ করা হয়েছে সেই সব data ধরে রাখে না, ব্রাউজারটি বন্ধ করার সময় সকল ডাটা মুছে যায়। একেই Private Browsing বা Anonymous Surfing বলে।

যদি আপনি আপনার কম্পিউটারটি একাধিক ইউজারের সাথে শেয়ার করে থাকেন, তাহলে আপনার জন্য এই প্রাইভেট ব্রাউজিং অপশনটি ভালো হবে।

Windows XP তে সিস্টেমের ইনফরমেশন দেখা

আপনি যেকোন সিস্টেমের information গুলি দেখতে পারেন কমান্ড প্রমট ব্যবহার করে। এর দ্বারা আপনি সিস্টেমের processor, Bios, Available Physical Memory, OS Configuration, networking information, installed hot fixes and System up Time ইত্যাদি জানতে পারবেন।

যা করতে হবে :
১. প্রথমে Start button এ ক্লিক করুন -> তারপর Run option এ ক্লিক করুন -> টাইপ করুন cmd -> এবং Ok button এ চাপুন। ( Command Prompt ওপেন হবে )

২. এবার command prompt এ টাইপ করুন systeminfo এবং এন্টার চাপুন। সকল ইনফরমেশন দেখতে পাবেন।

উৎস : কম্পিউটার ফ্রি টিপস
সম্পাদনা ও অনুবাদ : এলিন (এডমিন) ২০১০