বাতাসের সাহায্যে মোবাইল ফোন চার্জ

লন্ডনের অরেঞ্জ নামক একটি টেলিকমিউনিকেশন ফার্ম তৈরি করেছে এই নতুন মোবাইল চার্জারটি। এই চার্জারের প্রধান বৈশিষ্ট্য হচ্ছে ইহা বাতাসের শক্তিকে কাজে লাগিয়ে মোবাইলকে চার্জ দিতে পারে। যে এলাকায় বিদ্যুৎ নাই এমনকি সৌরশক্তিকেও ঠিকমত কাজে লাগানো যাচ্ছে না, সেই এলাকার কথা চিন্তা করেই এটি তৈরি করা হয়েছে।

এই নতুন চার্জারটি ওজনে মাত্র এক পাউন্ডের ৩ ভাগের ১ ভাগ এবং আকারে এতো ছোট যে অনায়াসে একে পিঠে নিয় চলাফেরা করা যায়। এতে ছোট একটি বায়ুচালিত পাখা ব্যবহার করা হয়েছে, যেটা বাতাসে ঘুড়বে এবং শক্তি উৎপন্ন করবে।

গত মাসে ইহা একটি অনুষ্ঠানে প্রদর্শিত হয়েছিল। এমন একটি এনভাইরনমেন্টে একে দেখানো হয়েছিল যেখানে ঘন্টায় প্রায় ১২ মিটার বেগে বাতাস চলাচল করছিল। ইহা একটি মোবাইল ফোনকে চার্জ দিতে সময় নেয় প্রায় ২৪ ঘন্টা।

অরেঞ্জ কম্পানি ইহা তৈরি করেছিল বাহিরে (outdoor use) ব্যবহারের জন্য, যেখানে প্রচুন বাতাসের আনাগোনা। কোন রকম ইলেক্ট্রনিক শক্তি ছাড়াই ইহা শুধুমাত্র বাতাসের সাহায্যে চলে। তবে সমস্যাটি হলো, এর জন্য প্রচুর বাতাসের প্রয়োজন। আর বাতাস না থাকলে তো কথাই নাই।

তারপরেও ইহা একটি নতুন এবং মানুষের অনেক উপকারে আসবে আশা করি। তবে অরেঞ্জ এটিকে কবে বাজারে ছাড়বে এবং এর দাম কত হবে সেটা এখনও সিদ্ধান্ত নেইনি।

উৎস : সিও ডট কম ২০০৮
অনুবাদ : এলিন (এডমিন)

পোস্টটি শেয়ার করুন :