হ্যান্ডসেটে লিখে ফেললেন ৩ শ’ ৮৪ পৃষ্ঠার বই

কাগজ-কলম আর টাইপ রাইটার না হয় সেকেলে। কবিতা বা উপন্যাস লিখতে তাই বলে কি নিদেনপক্ষে কম্পিউটারও প্রয়োজন পড়বে না? সম্ভবত এটাই প্রমাণ করতে চাচ্ছেন ইতালির লেখক রবার্তো বার্নোকো। প্রতিদিন দপ্তরে যাওয়া আসার সময়কে কাজে লাগিয়ে চলতি পথেই তিনি নিজের সেলফোনটিকে বই লেখার কাজে লাগিয়ে ফেলেছেন। উত্তর ইতালির পিডিমন্টের অধিবাসী তথ্যপ্রযুক্তি পেশাজীবী বার্নোকো ‘কম্পাগনি ডি ভিয়াগো’ নামের ৩ শ’ ৮৪ পৃষ্ঠার একটি সায়েন্স ফিকশন লিখে ফেলেছেন তার নকিয়া হ্যান্ডসেটে।

বইটির অনলাইন প্রকাশক লুলুডটকম এর মুখপাত্র গেইল জর্ডান বলেন, “এটি ছিল সত্যিই সময়ের সর্বোত্তম ব্যবহার। তার মাথায় এবং চিন্তায় একটি পূর্নাঙ্গ বই প্রস্তুত হয়ে ছিল, কিন্তু কম্পিউটারে বসে লেখার সময় তার ছিল না। হ্যান্ডসেটই তার এবং তার মতো লেখকদের জন্য সর্বোত্তম পন্থা।”

টেক্সট ম্যাসেজ শর্টহ্যান্ডে না লিখে তিনি বইটি লিখেছেন স্ট্যান্ডার্ড ইতালিয়ান ভাষায়। এজন্য তিনি তার পান্ডুলিপিটি ছোট ছোট প্যারাগ্রাফে ভাগ করে তার সেল ফোনে সেভ করে রেখেছেন। পরে প্রুফ দেখার জন্য তিনি তার নিজস্ব কম্পিউটারে ডাউনলোড করে নেন এই ফাইলগুলো।

2007_07_26t184312_277x450_us_commut

বইটি লিখতে বার্নোকোর সময় লেগেছে মাত্র ১৭ সপ্তাহ। বিভিন্ন গণমাধ্যমকে দেয়া সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন, “কয়েক বছর আগেও বইটি লিখতে আমাকে সময় এবং প্রকাশকের সঙ্গে সংগ্রাম করতে হয়েছে। এখন আমি একজন লেখক হতে পেরে গর্বিত। নকিয়া এবং লুলুডটকমকে ধন্যবাদ।”

রেডহ্যাট ইনকর্পোরেশনের সহকারি প্রতিষ্ঠাতা বব ইয়াং ইন্টারনেটে বই, ভিডিও ও অন্যন্য মাল্টিমিডিয়া পণ্য প্রকাশের জন্য ২০০২ সালে লুলুডটকম প্রতিষ্ঠা করেন।

ওয়েবটিতে এ পর্যন্ত প্রকাশিত বইয়ের সংখ্যা প্রায় ৩ লক্ষ ২৩ হাজার। বিক্রির তালিকায় এই বইগুলোর মধ্যে বার্নোকোর বইটির স্থান ১৯ হাজারর ৭ শ’ ২০ নম্বরে। বইটির দাম ধরা হয়েছে ১৭.৩৮ ডলার।

উৎস : বিডিনিউজ (২০০৮)

পোস্টটি শেয়ার করুন :