আসছে আবেগ সনাক্তকারী ইন্টেলের নতুন থ্রিডি ক্যামেরা

ইসরাইলের হাইফাতে ইন্টেলের ডেভেলপমেন্ট কোম্পানি সম্প্রতি একটি থ্রিডি ক্যামেরা তৈরির চেষ্টা করছে যা ব্যবহারকারীর আবেগকে বুঝতে সক্ষম হবে। তবে এটা শুধুমাত্র ল্যাপটপ এবং ট্যাবলেটের জন্যই প্রযোজ্য হবে।
ইন্টেল পারসেপচুয়াল কম্পিউটিং গ্রুপের স্ট্রেটেজিক প্ল্যানিং ডিরেক্টর ‘ঈগল ইয়ানছু’ এর মতে এই থ্রিডি ক্যামেরাতে উন্নত মানের সেন্সর ব্যবহার করা হবে। যার ফলে এই ক্যামেরা দিয়ে কোন ছবি তোলার সময় তার ব্যাকগ্রাউন্ড পরিবর্তন করে নেয়া যাবে। এছাড়াও ইহা রিমোট-কন্ট্রোল দ্বারা নিয়ন্ত্রণ করা যাবে। তিনি আরও বলেন তার টিম যে ক্যামেরাটি ডেভেলপ করতে কাজ করে যাচ্ছে তা ক্যামেরাটিকে গ্যাসচার অর্থাৎ শরীরের অঙ্গপ্রত্যঙ্গ এর নড়াচড়া, ভয়েস এবং ফেসিয়াল এক্সপ্রেশন দ্বারা নিয়ন্ত্রণ করা যাবে। এর কোন মানুষের উত্তেজনা, আবেগ, অনুভূতিকে বোঝার ক্ষমতা থাকবে। ব্যবহারকারী খুশী না রাগান্বিত সেটা সে বুঝতে পারবে। এছাড়াও ক্যামেরাটি দুরুত্ব, আকার-আকৃতি, গভীরতা, রঙ এবং কোন বস্তুর সীমারেখা বুঝতে সক্ষম হবে।

শিক্ষাক্ষেত্রেও এটি অনেক কাজে আসবে। যখন কোন শিশু কোন কিছু পড়তে কষ্ট পাচ্ছে বা ভালো করে বুঝে উঠছে না তখন ক্যামেরাটি সেই শিশুটির চোখের নড়াচড়া এবং প্রতিক্রিয়াটি সনাক্ত করে তা বলে দিতে পারবে। এছাড়াও এই ক্যামেরাটি কোন বস্তুর থ্রিডি ব্লু-প্রিন্ট তৈরি করে আর্কিটেকচারাল কাজে সাহায্য করতে পারবে। ইন্টেল বলে এই ক্যামেরাটি তুলনামুলকভাবে আকারে ছোট করা হবে যেন ইহা স্মার্টফোন, টেবলেট এবং ল্যাপটপের ওয়েবক্যাম হিসাবেও ব্যবহার করা যায়।

লেখা : এলিন ২০১৩

উৎস : অনলাইন

উইন্ডোজ ৮ এ গুগল ড্রাইভ ইনস্টল করার সময় ‘python27.dll’ ফাইল সংক্রান্ত সমস্যার সমাধান

আমরা কমবেশি অনেকেই অনলাইন ফাইল স্টোরেজের কথা জানি। আর গুগল ড্রাইভ, এর ভিতরে একটি। যারা গুগল ড্রাইভ ব্যবহার করে থাকেন তারা অনেকেই উইন্ডোজ ৮ এ তাদের পছন্দের এই গুগল ড্রাইভ চালাতে পারছেন না।

উইন্ডোজ ৮ এ গুগল ড্রাইভ চালাতে গেলে অনেক সময় অনেক ধরনের সমস্যা হয়। তাদের ভিতরে রয়েছে ‘পাইথন২৭’ ফাইল সংক্রান্ত সমস্যা।

যদি আপনি উইন্ডোজ ৮ এ গুগল ড্রাইভ ব্যবহার করতে গিয়ে কোন সমস্যায় পড়েন আর ‘পাইথন২৭’ সংক্রান্ত কোন ম্যাসেজ পান, তাহলে নিচের সমাধানটি একবার চেষ্টা করে দেখতে পারেন।

Error Message

Error

‘পাইথন২৭’ সংক্রান্ত সমস্যাটির সমাধান :

১. ‘https://drive.google.com/‎’ – এই সাইটটিতে গিয়ে আপনার জিমেইলের একাউন্ট দিয়ে লগইন করুন।

সর্বক্ষণ হাসতে থাকা একটি ছেলে

ছেলেটি একটি দুর্লভ ব্যাধিতে আক্রান্ত। যার কারণে তার হাটতে এবং কথা বলতে কষ্ট হয়। কিন্তু সে সব সময় খুশি থাকে। কারণ সে তার হাসি থামাতে পারে না। আর এটাই এর রোগ।

ছেলেটি ওয়াইল্টশায়ার এর ডেভিজেস নামক অঞ্চল বাস করে, নাম ‘ওল্লী প্যাথেরিক’। সে জন্ম থেকেই এ্যাঞ্জেলমেন সিনড্রোমে (ক্রোমোজন ডিসঅর্ডার) আক্রান্ত। এর ফলে সে অনেক ধরনের জটিলতায় ভুগছে। এবং তার মুখটি সর্বক্ষণ এমনভাবে থাকে যেন সে হাসছে। সহজেই সে উত্তেজিত হয়ে পরে। সে খুবই শান্ত প্রকৃতির ছেলে।

ওল্লী ও তার মা

ওল্লী ও তার মা

এমন কেইস লন্ডনে অনেক কম দেখা যায়। প্রায় ১০০০ এর ও কম কেইস এমনটি দেখা গিয়েছে সেখানে। তার মা ‘ক্যাম্পবেল’ অনেক চেষ্টা করেন তাকে সুস্থ করে তোলার জন্য। কোন ডাক্তারই তা ঠিক করতে পারেনি। ক্যাম্পবেল অনলাইনেও এই রোগ নিয়ে অনেক পড়াশোনা করে যাচ্ছে। কিন্তু এখনও কোন উপায় বেড় করতে পারিনি। ক্যাম্পবেল এমন অনেক মা’য়েদের সাথে যোগাযোগ করেছেন যাদের সন্তানরাও এই এ্যাঞ্জেলমেন রোগে আক্রান্ত। তিনি তাদের কাছ থেকে তথ্য সংগ্রহ করছেন, যদি কিছু করা যায়। তিনি তার ছেলেকে নিয়ে খুবই চিন্তিত এবং সব সময় কষ্টে থাকেন। তিনি বলেন তিনি তার ছেলের ভবিষ্যৎ নিয়ে তেমন চিন্তিত নন। তিনি সবসময় ভাবেন কি করে বুঝবেন তার ছেলে কখন কষ্টে থাকে। ছেলে প্রকৃত অনুভূতি বুঝবেন কি করে এটাই তার কষ্ট।

বিশ্বের সব থেকে কম বয়সী মন্ত্রী

মাত্র ১৬ বছর বয়সে পা দিয়েই মন্ত্রী হয়ে যায় প্যালেস্টাইনের একটি মেয়ে, নাম ‘বাশায়ের ওথমান’। বর্তমানে সেই বিশ্বের একমাত্র কম বয়সী মন্ত্রী। সে ওয়েস্ট ব্যাঙ্কের লোকাল এডমিনেষ্ট্রেশন মন্ত্রণালয় পরিচালনা করেছিল একটি দিনের জন্য। সেই সময় দায়িত্বশীল মন্ত্রী ‘ইহাব বেসাইসো’ মেয়েটির গ্রাম পরিদর্শনে গিয়েছিলেন।

বাশায়ের ওথমান : বিশ্বের সব থেকে কম বয়সী মন্ত্রী

বাশায়ের ওথমান : বিশ্বের সব থেকে কম বয়সী মন্ত্রী

এই মেয়েটি আগেও একবার দুই মাসের জন্য মেয়র পদেও ছিল। এক বছর আগেও একবার দুই মাসের জন্য বাসায়ের আল্লার শহরের মেয়র হয়েছিল। সেই সময় সেখানে প্রায় ৯০০০ লোকের বসবাস ছিল। হিজাব পরিহিত এবং সম্পূর্ণ চুল ঢেকে থাকা এই মুসলিম মেয়েটি সেই সময় এই ৯০০০ লোকের সমস্যা সমাধানে কাজ করেছিল।

মেয়েটি স্প্যানিশ এক খবরের কাগজ ‘এবিসি’ তে বলেছিল, “বেসাইসো সাহেব আমার শহর পরিদর্শনে গিয়েছিল এবং তিনি জানতেন যে আমি সেখানকার মেয়র পদে ছিলাম। আমি উনাকে আমার পরিকল্পনার কথা বলেছিলাম এবং তিনি অনেক অবাক হয়েছিলেন তা শুনে। আমি বলেছিলাম আমি আগ্রহী সেইসব কমবয়সী মানুষের জন্য যারা জানতো যে কোন কিছুই অসম্ভব না”। এর সাথে সে আরও যুক্ত করেছিল, “আমার মনে হয় প্যালেস্টাইনে কমবয়সী ছেলেমেয়েদেরকে রাজনীতিতেও আসা উচিত”।

লেখা : এলিন ২০১৩

সুত্র : অনলাইন

ফন্ট এম্বেড : ওয়েবসাইট বা এপ্লিকেশানে কাষ্টম ফন্ট ব্যবহার করা

ফন্ট এম্বেড কি ?

একটি ওয়েবসাইটে যদি কোন ফন্ট ব্যবহার করা হয়ে থাকে যা কম্পিউটারে ইনস্টল করা নাই, তাহলে সেই ওয়েবসাইটে ব্যবহৃত ফন্টটি ভালোমত দেখা যাবে না। এমনকি সেই ফন্ট ব্যবহার করে কোন লেখা দেখা নাও যেতে পারে। অনেক সময় চারকোনা বাক্স দেখা যায় সেই লেখাটির পরিবর্তে। এই জন্য আমাদের নতুন কোন ফন্ট ওয়েবসাইটে ব্যবহার করতে হলে সেই নতুন ফন্টটি ওয়েবসাইটের সাথে যুক্ত করে দিতে হবে, একে ‘ফন্ট এম্বেডিং’ বলে।

কোথায় এটি প্রয়োজন হয় ?

যে কোন ধরনে ওয়েবসাইট বা মোবাইল এ্যাপ্লিকেশান বা সফ্টওয়্যার এর জন্য এই ফন্ট এম্বেডিং এর প্রয়োজন হয়ে থাকে।