Category Archives: কৌতুক ও মজার জগৎ

ইন্টারকম থেকে হাতটা সরায়

প্রথম দিন ডেট সেরে বান্ধবীকে রাতের বেলা বাড়ি পৌঁছে দিতে এসেছে বাবু। দরজার পাশে দেয়ালে ভর দিয়ে দাঁড়িয়ে বললো সে, ‘সোনা, একটা চুমো খেতে দাও আমাকে।’

না না না!‘কী? তুমি পাগল হলে? এখানে দাঁড়িয়ে

‘আরে কেউ দেখবে না। এসো, একটা চুমো।’

‘না না, খুব ঝামেলা হবে কেউ দেখে ফেললে।’

‘আরে জলদি করে খাবো, কে দেখবে?’

‘না না, কক্ষণো এভাবে আমি চুমো খেতে পারবো না।’

‘আরে এসো তো, আমি জানি তুমিও চাইছো — খামোকা এমন করে না লক্ষ্মী!’

এমন সময় দরজা খুলে গেলো, বান্ধবীর ছোট বোন ঘুম ঘুম চোখে দাঁড়িয়ে। চোখ ডলতে ডলতে সে বললো, ‘আপু, বাবা বলেছে, হয় তুমি চুমো খাও, নয়তো আমি চুমো খাই, নয়তো বাবা নিজেই নিচে নেমে এসে লোকটাকে চুমো খাবে — কিন্তু তোমার বন্ধু যাতে আল্লার ওয়াস্তে ইন্টারকম থেকে হাতটা সরায়।’

উৎস : বিডিজোকস ২০০৮

কিছু জোকস নিয়ে এলাম…

‘মহীলার এ্যাপেন্ডিসাইটিসের অপারেশান’

এক মহীলা বাসে সীট না পেয়ে বলছে – ‘আমাকে যদি সীটে বসতে দেন, তাহলে আমি দেখাবো কোথায় আমার এপেন্ডিসাইটিসের অপারেশানটা হয়েছিল।’

সাথে সাথে কিছু ছেলে সীটে জায়গা করে দিল। মহিলাটি জানালার পাশে বসে আছে। এবার ছেলেটি বলছে – ‘এখন দেখাবেন কি, আপনার অপারেশানটি কোথায় হয়েছিল?’

বাসটি একটি হাসপাতালের কাছে এলেই, মহীলাটি সাথে সাথে বলে উঠলো- ‘ঐ তো, ঐখানেই হয়েছিল’।

‘স্বার্গে ক্রিকেট খেলা’

– হ্যারে, স্বর্গে কি ক্রিকেট খেলা হয়?

– অবশ্যই হয়। আমি স্বপ্নে গতকালই তো দেখলাম, স্বর্গে ক্রিকেট খেলা হচ্ছে। আর আগামীকালই তো তুই ব্যাট করছিস।

‘ইন্ডয়াতে যা হয় নি তাই আমেরিকাতে হলো’

( আমেরিকাতে কার্তিকদা ) কার্তিকদা বলছে, ‘ইন্ডিয়াতে যা হই নি আমেরিকাতে তাই হলো’।

– কি হলো!?

– এক আমেরিকান মেয়ের কাছে গেলাম, হাত ধরলাম, আর ইন্ডিয়াতে যা হই নি তাই হলো।

– কি হলো আর‍!?

– মেয়েটি কিছুই বলল না। তারপর আমি মেয়েটির সাথে তার বাসায় গেলাম। আর ইন্ডিয়াতে যা হই নি তাই হলো।

– কি, কি হলো…?

– মেয়েটির বাসায় গিয়ে তার বেডরুমে গেলাম। আর ইন্ডিয়াতে যা হই নি তাই হলো।

– আর কি হলো, বলো না?

– মেয়েটি কিছুই বলল না। তার স্বামী এলো। আর….

– আর? আর কি হলো!?

– আর কি হবে? ইন্ডিয়াতে যা হয়, তাই হলো। ইচ্ছামতো পেটালো।

‘মিলিটারির সাহস পরীক্ষা’

মিলিটারিদের সাহস পরীক্ষা করছে তাদের প্রধান। এক মিলিটারিকে দুরে দাঁড় করিয়ে রেখে মাথায় লেবু রেখে বন্দুক দিয়ে সেই লেবুটিকে গুলি করল। মিলিটারিটি একদম নড়ল না। লেবুটি ফেঁটে গিয়ে তার শার্টটিকে নষ্ট করে দিল।

তাদের প্রধান তাকে ৫০ টাকা দিয়ে বলছে- ‘সাবাস, এই টাকা দিয়ে সাবান কিনে শার্টটি ধুঁয়ে নিও’।

মিলিটারিটি বলল – ‘তাহলে আরোও ৫০ টাকা দিন, প্যান্টটিও ধুঁতে হবে’।

( এই লেখা আমি কয়েকদিন আগে টিভিতে ‘মিরাক্কেল’ এ শুনেছিলাম। আজ যতটুকু সম্ভব লিখেছি। হয়তো বা গুঁছিয়ে লেখা হয় নি। তবুও শেয়ার করতে ইচ্ছা হলো। )

লেখা : এলিন (২০০৯)

উৎস : টিভিতে শুনেছি

উন্মাদ ম্যাগাজিন অনলাইনে পড়তে চাইলে…

উন্মাদ ম্যাগাজিনের সাথে কম-বেশী অনেকেই পরিচিত। “প্রথম প্রথম আমি পড়তাম। এখন কিনে পড়তে ইচ্ছা করে না।” … এইরকম কথা অনেকেই বলে। যারা অনলাইনে বিনামূল্যে এই উন্মাদ ম্যাগাজিন পেতে চান তারা নিম্নের লিংক থেকে পেতে পারেন। অনেকে হয়তো বা এই লিংকটির সাথে পরিচিত থাকতে পারেন। তবে, যারা এখনও অপরিচিত, তাদের জন্য লিংকটি আমি আমার সাইটে দিয়ে দিলাম।

উন্মাদ ম্যাগাজিন পড়তে এখানে ক্লিক করুন।

অনেকদিন পরে আজ ব্লগে আবার লিখছি…

বিভিন্ন কাজের ঝামেলাতে ব্লগে আসা হয় না। আজ কেন জানি মনে হচ্ছে ব্লগে কিছু একটা লিখি। নিজের ব্লগে লেখার মজাই আলাদা। তবি বুঝতে পারছি না এতোদিন পরে আজ কি লিখা যায়। কিই বা লিখব! …… একটা কৌতুক দেয়া যেতে পারে।
সেনাবাহিনী, RAB এবং পুলিস
একবার সরকার ঘোষনা দিল সেনাবাহিনী, RAB এবং পুলিসের মধ্যে কে সবচেয়ে দক্ষ তা তিনি পরীক্ষা করবেন।এজন্য তিনি একটি খরগোস বনের ভেতর ছেড়ে দিয়ে বললেন যে এই খরগোসটি ধরে আনতে পারবে বুজবো সে বাহিনীটিই সবচেয়ে দক্ষ।
তারপর সেনাবাহিনী সারদেশের বন উজাড় করে দুই সপ্তাহ পর বলল কোথায়ও খরগোস নেই।
RAB দুই মাস গভীর তদন্ত করে বলল খরগোসটি ভারতে চলে গেছে
পুলিস দুই ঘন্টা পর একটি ভাল্লুক ধরে আনল যেটাকে দেখে মনে হচ্ছে খুব মার খেয়েছে এবং সেটা চিৎকার করে বলছে ঠিকাছে আমি খরগোস! ঠিকাছে আমি খরগোস!………
উৎস : কোথায় যেন পড়েছিলাম মনে আসছে না ( ২০০৯ )।

বিয়ের আগে চুমু

স্বামীঃ আচ্ছা বিয়ের আগে তোমাকে কেউ চুমু খেয়েছিলো?
স্ত্রীঃ একবার পিকনিকে গিয়েছিলাম | সেখানে আমাকে একা পেয়ে একটা ছেলে ছোরা বের করে বলেছিলো, যদি চুমু না খাও, তাহলে খুন করে ফেলবো |
স্বামীঃ তারপর তুমি চুমু খেতে দিলে?
স্ত্রীঃ দেখতেই পাচ্ছো, আমি এখনও বেঁচে আছি |

উৎস : বিডিজোকস