Category Archives: তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি

উইন্ডোজ এর ‘Send To’ মেনু নিজের পছন্দ মত করে সাজান

উইন্ডোজ ব্যবহারকারী প্রায়ই সকলেই উইন্ডোজের এই ‘Send to’ মেনুর সাথে পরিচিত। যে কোন ফাইল বা ফোল্ডারে মাউসের ডান বোতাম ক্লিক করলেই আমরা এই মেনুটিকে দেখতে পাই। এই মেনুর দ্বারা আমরা যে কোন ফাইল/ফোল্ডারকে পেন-ড্রাইভে বা অন্য কোন স্থানে খুব সহজেই কপি করে নিতে পারি। এছাড়াও ডেস্কটপে শর্টকাট তৈরি করতে পারি, কমপ্রেস করে অন্য কোথাও সহজেই কপি করে রেখে দিতে পারি, সিডি/ডিভিডিতে রাইটও করতে পারি।

send-to-menu

ইচ্ছে করলেই আমরা এই মেনুটিকে নিজের পছন্দমত সাজিয়ে নিতে পারি। যেমন, মনে করুন আপনার ইচ্ছে আপনি বিভিন্ন ড্রাইভ থেকে আপনি ফাইল/ফোল্ডার একটি ফোল্ডারে কপি করে নিবেন পরে সেই ফোল্ডারটিকে সিডিতে রাইট করবেন বা ফোনে ভরে রাখবেন। অথবা, আপনি যখন আপনার ফোনে গান নিতে চান, তখন এই ‘Send To’ মেনু আপনাকে অনেক সাহায্য করবে।

নরমালি সেন্ড-টু মেনু ব্যবহার কে সরাসরি গানগুলি আপনার ফোনে নিলে সেই গানগুলি পছন্দমত ফোল্ডারে গিয়ে পড়বে না এবং ফোনের অন্যান্য ফাইল/ফোল্ডার এর সাথে ছড়িয়ে ছিটিয়ে যাবে।

তাই যদি আপনি প্রথমেই সকল ফাইল/ফোল্ডারকে একটি ফোল্ডারে সহজেই সাজিয়ে নিতে পারেন আপনার জন্য কাজটি করা ঝামেলাপূর্ণ মনে হবে না।

তাহলে আসুন যেনে নেই কি করে উইন্ডোজের ‘Send To’ মেনু নিজের পছন্দমত সাজাতে হয়।

ফেইসবুক এর সেরা দশটি ব্যাপার

top-10-facts-about-facebook
১. এই পৃথিবীর ১৩ জন লোকের ভিতরে দৈনিক ১ জন ফেইসবুকে থাকে।
২. প্রতি ২০ মিনিটে ২,৭১৬,০০০ ফটো আপলোড হয়ে থাকে।
৩. প্রতি ২০ মিনিটে ১০.২ মিলিয়ন কমেন্ট পোস্ট হয় ফেইসবুকে।
৪. প্রতি ২০ মিনিটে ১,৯৭২ মিলিয়ন ফ্রেন্ড রিকোয়েস্ট একসেপ্ট হয়ে থাকে।
৫. প্রতি ২০ মিনিটে ১,৮৫১,০০০ স্ট্যাটাস আপডেট হয়।
৬. ১৮ থেকে ৩৪ বছরের মানুষদের প্রায় ৪৮ শতাংশ ঘুম থেকে উঠেই ফেইসবুক চেক করে।
৭. ফেইসবুক ব্যবহারকারীরা প্রতি মাসে ৭০০ বিলিয়ন এরও বেশি মিনিট ফেইসবুকে কাটায়।
৮. যারা মোবাইলে ফেইসবুক ব্যবহার করে তারা অন্যদের থেকে দ্বিগুণ সময় কাটায় ফেইসবুকে।
৯. ফেইসবুকের সব থেকে বেশি জনপ্রিয় ফ্যান-পেজ হচ্ছে ‘Texas Hold’em Poker’ যার ফ্যান ৪১ মিলিয়ন ছাড়িয়ে গেছে।
১০. সব থেকে ইউএসএ তে বেশি ফেইসবুক ব্যবহারকারী রয়েছে যার পরিমাণ ২৩.৬ শতাংশ।

ফটোশপ : মানুষের স্কিনকে কোন প্রকার গঠনবিন্যাস (টেক্সচার) না নষ্ট করে নমনীয় করার পদ্ধতি

এই ফটোশপ টিউটোরিয়ালে আমি দেখাবো কি করে স্কিনকে নমনীয় করা যায় এবং কোন প্রকারের গঠনবিন্যাস নষ্ট না করেই।

ফাইনাল রেজাল্ট :

soften skin in photoshop

পদ্ধতি

রোবট ড্যান্স : গাং-নাম স্টাইলের তালে নেচে প্রতিযোগিতায় জয়লাভ করেছে এক রোবট

চীনের পূর্বাঞ্চল ‘হ্যাংঝোউতে’ একক নৃত্যের উপরে একটি প্রতিযোগিতা হয়েছিল। সেখানে বিচারকও ছিলেন, দর্শকরাও ছিলেন, যেমনটি থাকে অন্যান্য সাধারণ প্রতিযোগিতাগুলিতে।

কিন্তু এই প্রতিযোগিতাটি অন্যান্য প্রতিযোগিতা থেকে ভিন্ন ছিল। এখানেrobot gangnam style dance প্রতিযোগীরা কোন মানুষ ছিল না। এই প্রতিযোগিতা হয়েছিল কিছু সংখ্যক রোবটদের নিয়ে।

আর সেখানে সকল রোবট নৃত্যশিল্পীদেরকে হারিয়ে প্রথম স্থান অধিকার করে একটি রোবট, যে নেচেছিল এখনকার দিনের সারা জাগানো গান ‘গাং-নাম স্টাইল’ এর সাথে। এই গানটি এই পর্যন্ত ইউটিউবে ৬০০ মিলিয়নের মত হিট পড়েছে।

এই ‘গাং-নাম স্টাইল’ গানটি গেয়েছিলেন দক্ষিণ কোরিয়ার একজন র‍্যাপার (যে র‍্যাপ গান গায়) Psy । তিনি এই গানটি রিলিজ করেন এই বছরের জুলাই মাসে। এতে তিনি একটি বিশেষ স্টাইলে নেচেছেন যাকে নাম দিয়েছেন ‘গাং-নাম স্টাইল’ বা ‘হর্স ড্যান্সিং’।

নিচে ভিডিওটি দেখুন (ভিডিও লিংকটি মাঝে মাঝে কোথায় যেন হারিয়ে যাচ্ছে 🙁 )

ইউটিউব লিংক : http://youtu.be/lwcz0S_oqZM

উৎস : বিবিসি নিউজ ২০১২

পৃথিবীর সবথেকে বিস্ময়কর এবং জটিলতায়-ঘেরা রেললাইনগুলি

পৃথিবীর সব থেকে বিস্ময়কর এবং জটিলতাময় রেললাইন রয়েছে জার্মানির ফ্রাঙ্কফুর্ট নামক অঞ্চলে। ছবিতে দেখলে কেউই বিশ্বাস করতে চাইবে না যে এটা সত্যিকারের দৃশ্য। অনেকেই বলবে, রেললাইন এমন হয় নাকি ? বা কেন এমন করে রেললাইন করতে যাবে ? কিন্তু হ্যাঁ, এটা আসলেই সত্যি।

আর এর থেকেও মজার কথা হচ্ছে, এখনও পর্যন্ত শোনা যায় নি যে জার্মানির সেই ফ্রাঙ্কফুর্ট এ কোন রেল এক্সিডেন্ট হয়েছে।

রেলওয়ে সিগন্যাল সম্পূর্ণরূপে অটোমেটেড যা নতুন এক ধরনের টেকনোলজির দ্বারা নিয়ন্ত্রিত। কোন ট্রেনের অপেক্ষা করতে হয় না লেভেল ক্রসিং এর জন্য। এক সুন্দর সিস্টেমে সব কিছুই চলছে। এবং সবাই নির্ভয়েই সেই টেকনোলজির উপর বিশ্বাস রেখেই যাতায়াত করে যাচ্ছে। জার্মানির এই রেলওয়েটা অনেক ব্যস্ততাপূর্ন এলাকাতে পরিণত হয়েছে যা সত্যি বিস্ময়কর!

নিচে রেললাইনগুলির কিছু ছবি দেখানো হল :