প্রাইভেট ব্রাউজিং – Anonymous Surfing

এখনকার প্রায় সকল ব্রাউজারেই এই private browsing mode দেয়া থাকে এবং সেগুলো প্রায় একই রকম কাজ করে থাকে। প্রাইভেট ব্রাউজিং এর সময়  ‘browsing history’, ‘browser cache’ এর ডাটা এবং ব্রাউজারে যে সকল বিষয় টাইপ করা হয়েছে সেই সব data ধরে রাখে না, ব্রাউজারটি বন্ধ করার সময় সকল ডাটা মুছে যায়। একেই Private Browsing বা Anonymous Surfing বলে।

যদি আপনি আপনার কম্পিউটারটি একাধিক ইউজারের সাথে শেয়ার করে থাকেন, তাহলে আপনার জন্য এই প্রাইভেট ব্রাউজিং অপশনটি ভালো হবে।

ইহা অনেক উপকারী কিন্তু খুবই শক্তিশালী না। আপনি যদি মনে করে থাকেন, আপনি নেট ব্যবহার করার সময় আপনার আইডেন্টি লুকানো থাকবে তাহলে এটা সেই কাজ করবে না। কারণ, অনেক কিছু রয়েছে যার দ্বারা আপনার আইডেন্টি চুরি হতে পারে, যেমন : keyloggers, tracking programs, malwares, অথবা, government investigation efforts।

 আধুনিক ব্রাউজারগুলিতে Private Browsing করার নিয়ম :

Firefox

ফায়ারফক্স এ এর নাম ‘private browsing’। হাল্কা কমলা রঙের Firefox লেখা মেনুতে ক্লিক করুন (ব্রাউজারের উপরের বামে দেখা যাবে) -> তারপর “Start Private Browsing.” Private Browsing ব্যবহার করার সময় Firefox এর রঙ ভিন্ন হয়ে যেতে পারে। এবং কিছু ম্যাসেজ দেখাবে। এটা হতে পারে যদি আপনি প্রথমবার এর মত ইহা ব্যবহার করে থাকেন। আপনি যদি চান, এই স্ক্রিনটি পরবর্তীতে না আসুক হালে ‘avoid receiving the same message every time’ চেক বক্সে ক্লিক করে চেক করে দিন। আবার পূর্বের মত করতে অর্থাৎ Private Browsing বন্ধ করতে Firefox মেনুতে ক্লিক করুন এবং “Stop Private Browsing” এ ক্লিক করুন। আবার সাধারণ ট্যাবগুলি দেখা যাবে।

Google Chrome

গুগল ক্রোম ব্রাউজারটি একটু ভিন্ন এই Anonymous surfing করার জন্য। এখানে একে বলে ‘Incognito mode’। প্রথমে Settings মেনুতে যেতে হবে এবং সেখানে ছোট আইকন দেখা যাবে উপরের ডান কর্নারে। ক্লিক করতে হবে “New Incognito Window” তে। তখন একটি নতুন উইন্ডো আসবে। এখন আপনি আপনার কাজ করতে পারবেন। আবার পূর্বের মত করতে অর্থাৎ Anonymous Surfing বন্ধ করতে হলে, শুধুমাত্র ‘Incognito Window’ টি বন্ধ করে দিতে হবে। এখন আপনি আবার আগের উইন্ডোতে ফিরে আসবেন।

Opera

Opera তে এই কাজটিকে বলে ‘Private Window’ অথবা, ‘Private Tab’। ইহা চালু করতে যেতে হবে File menu -> New Private Tab/New Private Window. অথবা, নতুন ট্যাব এনে ক্লিক করতে হবে “New private tab”। আবার পূর্বের মত ফিরে যেতে অর্থাৎ anonymous surfing বন্ধ করতে ঐ tab টি অথবা, উইন্ডোটি বন্ধ করে দিলেই হবে।

Internet Explorer

ইন্টারনেট এক্সপ্লোরার এ anonymous surfing কে বলে ‘InPrivate Browsing’। ইহা ওপেন করতে হলে যেতে হবে tools মেনুতে (উপরের ডান দিকে) এবং ক্লিক করতে হবে InPrivate Browsing button । এখন একটি উইন্ডো ওপেন হবে। বাকি সব আগের মতই। এটি বন্ধ করতে হলে শুধুমাত্র উইন্ডোটি বন্ধ করে দিলেই হবে।

পোস্টটি শেয়ার করুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *