জীবনের প্রথম চাকরি-ইন্টারভিউ…(!?)

আমার চাকরির জন্য হঠাৎ করে আমি নিজেই একবার ট্রাই করে বসলাম। ( কিছুদিন অন্যদের এই ব্যাপারে ট্রাই করতে বলেছিল আমার মা, নিজের লোকোরা আসলেই কোন উপকারে আসতে চায় না। এতোদিন আমি নিজে চেষ্টা করি নাই। ভালো লাগে না চাকরি করতে। ) যাহোক, এইবার আম্মা বলায় আমি বিডিজবস এ একবার একটা জব এর জন্য এপ্লাই করে ফেললাম। খান ব্রাদারস ইনফরটেক এর একটা ফ্রীল্যান্সের জব। অবাক করে দিয়ে আমার কাছে একটা কল চলে এলো দু’দিন পরেই খান ব্রাদারস থেকে। আমাকে একবার যেতে বলেছে। আমি গেলাম। বিশাল একটা অফিস। শান টাওয়ারে। শান্তিনগরের চামেলীবাগে। আমার সাথে কথা বলে খুবই আনন্দিত হয়ে আমাকে জুলাই এর ১ তারিখ বলেছে ফোন করে ডেট বলে দেবে। আমি তো ভেবেছিলাম কি না কি জিজ্ঞাসা করে। কিন্তু আমার সাইটগুলো দেখে আর আমি সিআইএস ( কম্পিউটিং ইনফরমেশান সিস্টেমস ) এর ছাত্র শুনে আর কিছুই জিজ্ঞাসা না করে বলল, আমি কেমন স্যালারি আশা করছি। মানে সব ঠিক। আমি তো মোটামুটি অবাক হলাম। এসব তো কোন ভয়ের কিছু না, আগে ভাবতাম অনেক কঠিন কি যেন। জুলাই এ চাকরী মোটামুটি রেডী করে বাসাতে আসার সময় আবার জানতে পারলাম আমাদের ড্যাফোডীলের একটি জবের জন্য সামসুদ্দিন স্যার আমাকে যেতে বলেছে। এই তো পরেছি মহা চিন্তায়!!
এখন আমি জুলাই এর ১ তারিখে কোনটা করবো – স্যারের টা নাকি খান ব্রাদারস এর টা। স্যারেরটা না করলে স্যার কি মনে করবে, আর খান ব্রাদার্সের টা আমি কি বলি তাদের!? দেখি জুলাই আসুক, কি হয়।
যা হোক আমার চাকরীর জন্য নিজের প্রথম চেষ্টাটাই সফল। মজাই লাগছে!!
লেখা : এলিন (এডমিন) ২০০৯

পোস্টটি শেয়ার করুন :

2 Responses to জীবনের প্রথম চাকরি-ইন্টারভিউ…(!?)

  1. ঠিক বলেছেন, জীবনের প্রথম কোন কিছুই ভোলার নয়। ধন্যবাদ মন্তব্য দেবার জন্য।

  2. ১।
    প্রথম ইন্টারভিউ আসলেই ভুলা যায়না! আমার নিজেরটা আমাড় এখনো মনে আছে… যেন সেদিনকার ঘটনা!

    ২।
    আপনার ব্লগটা ভালোই লাগলো… বেশ ঝরঝরে লেখেন আপন… আশাকরি চালিয়ে যাবেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *